ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল A to Z (১ম পর্ব)



আসসালামু আলাইকুম, সকলে কেমন আছেন? আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে অনেক ভালো আছি। আর যারা নিয়মিত ট্রিকবাজের সাথে থাকেন তাদের ভালো থাকারই কথা। কেননা, এখান থেকে আমরা প্রতিনিয়ত অনেক অজানা বিষয়গুলো জানতে ও শিখতে পারি। ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে ধারাবাহিক টিউটোরিয়ালের প্রথম পর্বে আপনাদের স্বাগতম জানাচ্ছি। বর্তমানে যারা অনলাইনের সাথে জরিত, তাদের সাথে ওয়ার্ডপ্রেসকে নতুনভাবে পরিচয় করিয়ে দেবার মত কিছু নেই। তারপরেও যারা একদমই নতুন তাদের জন্য লিখতে শুরু করলাম।

আজ আমরা জানবো ওয়ার্ডপ্রেস কি ও ইতিহাস সম্পর্কে ।

১. ওয়ার্ডপ্রেস কি?
ওয়ার্ডপ্রেস বর্তমান সময়ের বহুল ব্যবহার সর্বাধিক জনপ্রিয় কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ব্লগিং সফটওয়্যার। এটি মূলত পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল দ্বারা তৈরী এবং নিয়ন্ত্রিত একটি ব্লগিং প্যাকেজ সফটওয়্যার। ওয়ার্ডপ্রেসের ব্যবহারের ক্ষেত্রে অনেক কারন ও সুবিধা আছে, সেগুলো ধাপে ধাপে জানতে পারবেন।

কারনঃ ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্য ওয়ার্ডপ্রেসকে ওপেন সোর্স করে দেওয়া হয়েছে যাতে যে কেউ সহজেই তার ইচ্ছেমতো পরিবর্তন করে নিয়ে কাজ করতে পারে। ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা কোন প্রকার পিএইচপি, মাইএসকিউএল বা এইচটিএমএল জ্ঞান ছাড়াই ওয়েবসাইট বা ব্লগ কয়েক দিনেই তৈরি করা যাই। তবে হ্যাঁ, পেশাগত কাজের মান আনতে হলে আপনাকে অবশ্যই এইচটিএমএল, সিএসএস, পিএইচপি, জাভাস্ক্রীপ্ট ও মাইএসকিউএল  সম্পর্কে কিছু জ্ঞান থাকতে হবে।

সুবিধাঃ ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস প্যাকেজ সফটওয়্যারটি ওপেনসোর্স এবং বিনামূল্যে পাওয়া যায়। এছাড়াও বিনামূল্যে অনেক থীম, প্লাগইন পাওয়া যায় যা আপনার কাজে কোন সমস্যা হবে না। কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম হওয়ায় যেকোন তথ্য সহজে হালনাগাদ করা যায়। এছাড়া ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার বান্ধব ও সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন ইত্যাদি।

ওয়ার্ডপ্রসের সর্বশেষ ভার্সন ডাউনলোড করতেঃ https://wordpress.org/download


২.ওয়ার্ডপ্রেসের ইতিহাসঃ
২০০৩ সালের ২৭শে মে ওয়ার্ডপ্রেস সর্বপ্রথম প্রকাশ করেন ম্যাট মুলেনওয়েগ। ২০১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩.০ সংস্কার ৬৫ বিলিয়ন বারের বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে। শুরু থেকে এটি ব্লগিং সফটওয়্যার হিসেবে ব্যবহার হলেও বর্তমানে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে অনেক বড় বড় ওয়েবসাইট নির্মাণ করা হচ্ছে।

শুরু থেকে বলতে গেলে, B2 এবং CAFELOG নামে সংগঠন ওয়ার্ডপ্রেসের অগ্রদূত। ওয়ার্ডপ্রেস তৈরির পর থেকে ২০০৩ সালের মে মাস পর্যন্ত B2 এবং CAFELOG সংগঠনটি কমপক্ষে ২০০০ ব্লগ হোস্ট করতে চেয়েছিল। ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস-টি পিএইচপি ফ্রেমওয়ার্ক এবং মাইএসকিউএল ডেটাবেজের সমন্বিত রূপ। এটি মাইকেল ভাল্ডিঘি কৃতক আধুনিকায়ন করা, যিনি বর্তমানে ওয়ার্ডপ্রেসের ডেভেলপার ও অফিসিয়াল অগ্রদূত। সাথে তিনি বি২ ইভুলুয়েশন প্রজেক্টের এক্টিভ সদস্য।

ওয়ার্ডপ্রেস সর্বপ্রথম ২০০৩ সালে ম্যাট মুলেনওয়েগ এবং মাইক লিটিল কৃতক বি২ইভুলুয়েশনের একটি ছোট প্রোজেক্ট ছিল। আর আমরা বর্তমানে “ওয়ার্ডপ্রেস ” যে নাম ধরে বলছি এটা ম্যাট মুলেনওয়েগের বন্ধু ক্রিস্টিন সেল্লেক ট্রিমুলেটের পছন্দ করে দেওয়া নাম।

২০০৪ সালে Six Apart কতৃর্ক তৈরিকৃত আরেক ব্লগিং সফটওয়্যার Movable Type তাদের ব্যবহার বিধিমালা পরিবর্তন করায় তাদের বেশির ভাগ ব্যবহারকারী Movable Type ছেড়ে ওয়ার্ডপ্রেসে চলে আসে এর  ফলে ওয়ার্ডপ্রেসের ভাগ্যকে প্রসারিত করে।

অক্টোবর ২০০৯ সালে ওপেন সোর্স কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম শেয়ার মার্কেট রিপোর্ট অনুযায়ী দেখা যায়, ওয়ার্ডপ্রেস ২০০৯ সালে তাদের টার্গেটের তুলনায় ওপেন সোর্স কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম হিসেবে অধিক জনপ্রিয়তা এবং সফলতা অর্জন করতে সমর্থ হয়েছে। ওয়ার্ডপ্রেস এভাবেই আজকের বিশ্ব দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে গেছে।

আমার ফেসবুক লিংকঃ ক্লিক করুন


লেখকঃ Freelancer Nurul