ফ্রীল্যান্সিংয়ে নতুনদের কাজের জন্য কাজের ক্ষেত্রে সঠিক মূল্য নির্ধারণ



যে লোক ৫০০$ এর কাজ ৫০-এ করে সে কি ফ্রীলান্সার না ভিক্ষুক আমি বুঝিনা।

নতুনরা মার্কেটে এসেই ৫০০/১০০০$ এর প্রজেক্ট পাবেনা যদি। এই ক্ষেত্রে যদি ব্র্যান্ড ভ্যালু থাকে অথবা নির্দিষ্ট কাজের ক্ষেত্রে খুব পরিচিত ব্যক্তি হয় তাহবে বিষয়টা অন্যরকম হতে পারে।

এইখানে অনেকগুলা ফ্যাক্টর কাজ করে। আমরা একটা ২০-টাকা দামের কোল্ড-ড্রিঙ্কস কেনার ক্ষেত্রে খুব ভালো ভাবে যাচাই-বাছাই (ভালো ব্র্যান্ড অথবা পছন্দের ফ্লেভার) অথবা এক্সপায়ার ডেট দেখে।

একজন বায়ার নতুন একজন ফ্রীলান্সারকে কখনোই ৫০০০/১০০০$ এর প্রজেক্টে হায়ার করবেনা। এইখানে টাকাটা বড় ফ্যাক্ট না বিশ্বাস যোগ্যতা বা অভিজ্ঞতাই মুখ্য বিষয়। একজন বায়ারের কাছে টাকার চাইতেও কাজ বড় ফ্যাক্ট হতে পারে যখন সেটা হয় বিগ বাজেটের কাজ। মনে রাখবেন যে ক্লায়েন্ট ৫০০/১০০০$ একটা কাজে ইনভেস্ট করতে ইচ্ছুক তার জন্য অবশ্যই কাজটা খুব গুরুত্বপূর্ণ এবং এই ক্ষেত্রে সে অবশ্যই অভিজ্ঞ এবং বিশ্বাসযোগ্য এমন কাউকেও বেঁছে নিবে। এই ক্ষেত্রে সে হয়তো ফ্রীল্যান্সারের রিভিউ এবং প্রোফাইল যাচাই-বাছাই করবে। যে ক্লায়েন্ট একটি কাজে বিগ বাজেট ইনভেস্ট করতে ইচ্ছুক সে কখনোই কাজের মূল্য এবং কাজের মানের সাথে একম্প্রোমাইজ করবেন।

এক্সপার্ট ফ্রীল্যান্সার ক্ষেত্রে ১০০০$ কাজ হয়তো ক্ষেত্র বিশেষে ৮০০/৯০০$ হতে পারে এর নিচে সে নামবেনা কারণ এটা তার নিজের প্রতি আত্মবিশ্বের ঘাটতি প্রকাশ করে এবং ক্লায়েন্টদের মনে নেগিটিভ ধারণার জন্ম দেয়।

আপনি ১০০০$ বাজেটের একটি কাজ ১০০$ নিয়ে নিলেন যদি এমন হয় তাহলে মনে রাখবেন আপনি যার কাজ করছেন হতে পারে সে একজন প্রতারক। অন্যদিকে আপনি মার্কেটে নিজের অবস্থান সর্বোপরি আপনার দেশের অবস্থান সম্পর্কে বিরূপ ধারণা তৈরী করছেন।

যথেষ্ট স্কিল এবং অভিজ্ঞতা না থাকলে কখনোই মার্কেটে যাওয়া উচিৎ না। নতুনের যদি প্রথমেই বড় বাজেটের কাজ পাওয়া কঠিন তাই এই ক্ষেত্রে আপনি ১০/২০/৫০$ এর কাজ গুলা পাওয়ার চেষ্টা করেন। আপনি ১০০$ এর কাজ e৭০/৮০$ এ করেন এর ফলে ধীরে ধীরে আপনার নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস বাড়বে মার্কেটে আপনার নিজের, আপনার কাজের এবং আপনার দেশের ভ্যালু একটি স্ট্যাবল পর্যায়ে থাকবে। খামাখা ১০০০$ কাজ ৫০/১০০$ করার চেষ্টা করবেনা এমনকি পেলেও করবেননা। এর ফলে আপনার ভ্যালু কমে যাবে। এইসব ক্ষেত্রে প্রতারকের পাল্লায় পড়ার সম্ভাবনা বেশি আর প্রফেশনাল ক্লায়েন্ট তার কাজের মান এবং মূল্য সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতন সুতরাং আপনি যখনি ১০০০$ এর কাজ ১০০$ বলবেন সেই মুহূর্তেই ক্লায়েন্ট বুঝে যাবে যে আপনি আধা আলেম গাধা। আপনাকে হায়ার করলে তার লাভের তুলনায় ক্ষতিই বেশি হবে সুরতাং আপনাকে সে ইগনোর করবে।

কাজ এবং কাজের সঠিক মূল্য বুঝেন বুঝে কাজ করেন খামাখা অযৌক্তিক কোনো কিছু যেমন ১০$ এর কাজে ১০০$ বা ১০০০$ এর কাজে ১০০$ চাওয়া এমন মনমানুষিকতা এবং কার্যকলাপ সকলের জন্যই ক্ষতিকর।

স্কিল না থাকলে মার্কেটে যাবেননা। আমি অভিজ্ঞতাকে প্রথম দিকে কখনোই ভ্যালু দেইনা। কারণ অভিজ্ঞতা বাজারে কিনতে পাওয়া যায়না এবং কেউ মায়ের পেট থেকে নিয়েও জন্মায় না। কাজের সাথে সাথে অভিজ্ঞতা বাড়বে। অভিজ্ঞতা আপনাকে একই কাজ একসময় যেটা ১-ঘন্টার করতে সেটা ২০-মিনিটে করতে সয়াহতা করবে। তবে অভিজ্ঞতা কখনোই আপনার কাজের ক্ষেত্র বদলে দিবেনা।

আপনি অনভিজ্ঞ অবস্থায়-ও লোগো ডিজাইন করতেন এবং অভিজ্ঞ অবস্থায়-ও লোগোই ডিজাইন করবেন, ফাইটার জেট বা রকেট নয়। অন্যদিকে লোগো ডিজাই করার জন্য প্রয়োজনীয় স্কিল যদি আপনার না থাকে তাহলে আপনি তো কাজে-কর্মেই যোগদান করতে পারবেননা সফলতা তো অনেক দূরের বিষয়।

কাজ করার জন্য যেকোনো বা আপনার পছন্দ অনুযায়ী যে কোনো ক্ষেত্রে স্কিল/দক্ষতা আপনি এইটা চাইলেই অর্জন করতে পারবেন এবং আমার মতে প্রথমে অবশ্যই স্কিল ডেভেলপমেন্ট করা উচিৎ। একটি কাজে যখন আপনার প্রফেশনাল লেভেলের স্কিল থাকবে  তখন সমস্ত পারিপার্শিক পরিস্থিতি আপনার বিপক্ষে থাকলেও আপনার সফলতা অর্জনের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবেনা।

একজন অদক্ষ এবং দক্ষ লোকের কথা আর কাজের মধ্যে অনেক পার্থক্য থাকে আর ক্লায়েন্ট সেটা অবশ্যই বুঝতে পারে। কাজেই দক্ষতার প্রতি অধিক গুরুত্ব দেন। প্রফেশনাল  লেভেল দক্ষতা আপনাকে সফলতার অর্জনে সয়াহতা করবে। দক্ষতার জন্য আপনি আটকে থাকবেন কখনোই অভিজ্ঞতার জন্য নয়।

ধন্যবাদ সবাইকে।

লেখকঃ Md Alam