ফাইভারে আইডি খোলার আগে জেনে নিন এই ১০ টা বেসিক


হতে পারে এটা একটা ট্রল পোস্ট কিন্তু যদি আসলেই আপনি যথাযথ দক্ষ না হয়ে শুধু মাত্র লোকের মুখে হাজার হাজার ডলারের কথা শুনে আর গ্রুপে গ্রুপে ভুয়া মার্কেটিং এর নামে স্প্যামিং এর ওপর ভরসা করে ফাইভারে আইডি খুলতে চান, তাহলে ফাইভার আপনার লাইফ ট্রল করে ছেড়ে দেবে। :D
তাই যারা নতুন, তাঁরা ফাইভারের বেসিক টা না জেনে আইডি খোলায় হাত দেবেন না। আর জানার জন্য গ্রুপে নজর রাখুন, ইউটিউব এ ভিডিও গুলি দেখুন। সময় নিন আপনার কাজ ও ফাইভার কে বুঝতে। তার পরে আইডি খুলুন।

যে বিষয় গুলি আইডি খোলার আগে জানতেই হবেঃ
১। ফাইভার কি, এটা কিভাবে কাজ করে।
২। ফাইভার গিগ কি?
৩। কিভাবে ইউনিক গিগ বানাতে হবে?
৪। কিভাবে গিগ রিসার্চ করতে হবে?
৫। বায়ার রিকুয়েস্ট কি? কিভাবে বায়ার রিকুয়েস্ট দিতে হয়।
৬। ফাইভারে কিভাবে ব্যাঙ্ক অ্যাড করবো?
৭। ফাইভার থেকে টাকা কিভাবে ব্যাঙ্ক এ নিয়ে আসবো?
৮। ফাইভারের রুলস আর রেগুলেশানস।
৯। আপনি ফাইভারে প্রফেশনালি কাজ করার যোগ্য কিনা।
১০। সর্বোপরি গাটে গামছা বেধে ৬ মাস থেকে ১ বছর লেগে থাকার মানুসিকতা।

ওপরের এই বেসিক ১০ টা জিনিস ১০০% কনফার্ম হয়ে তবেই ফাইভারে আইডি খুলুন নয়তো না।

লেখকঃ রাকিবুস সুলতান নীড়